1. billalhossain@cumillardak.com : দৈনিক কুমিল্লার ডাক : দৈনিক কুমিল্লার ডাক
  2. : admin :
  3. Editor@gmail.com : Comillar Dak : Comillar Dak
  4. Noman@cumillardak.com : Noman :
"কলেজের করিডোরে হৃদয়ের হাসি : বৃষ্টি ও সাহিত্যের মিলন" - দৈনিক কুমিল্লার ডাক
মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১২:২৪ পূর্বাহ্ন
Title :
কুমিল্লায় বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক ফোরামের বিভাগীয় সাংগঠনিক কর্মকাণ্ডের প্রস্তুুতি সভা সমাপ্ত কুমিল্লায় জোড়া খুনের মামলায় ০৬ জনের মৃত্যু দণ্ড, ৭ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ছিনতাইয়ের ৩৬ ঘন্টার মধ্যে মালামাল উদ্ধারসহ গ্রেফতার দুই নগরীর পূর্বালী চত্বরে ‘শান্তি সমাবেশ’ করেছে মহানগর ছাত্রলীগ উপজেলা পরিষদ এসোসিয়েশন কুমিল্লা’র নতুন কমিটি : ইউনুস ভূইয়া সভাপতি ও এড. টুটুল সাধারণ সম্পাদক চৌদ্দগ্রামে ২৫ কেজি গাঁজাসহ আটক ২, সিএনজি অটোরিকশা জব্দ চৌদ্দগ্রামে ৬০ কেজি গাঁজা সহ ডিবির হাতে আটক ৩ চোরাকারবারিদের কালো থাবা, যাচ্ছে ইলিশ আসছে মাদক! ভুট্টা ক্ষেতে প্রবাসীর স্ত্রীর মরদেহ ডিবি পুলিশের অভিযানে চার মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

“কলেজের করিডোরে হৃদয়ের হাসি : বৃষ্টি ও সাহিত্যের মিলন”

তুলিকা দাসগুপ্ত :
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন, ২০২৪
  • ৩০৩৫ Time View

সেই বৃষ্টিভেজা কলেজের দিনে, আমার প্রায় ফাঁকা বাংলা ডিপার্টমেন্টের এক কোণে বসে ছিলাম আমি। জানালা দিয়ে বৃষ্টির ফোঁটা দেখতে দেখতে রাধা-কৃষ্ণের প্রেম লীলা নিয়ে নোটস বানানোর মধ্যে ডুবে ছিল মন। হঠাৎ ঝড়ের মতো তুমি এসে উপস্থিত হলে আমার সামনে, নোটসের পাতায় চোখ বুলিয়ে হেসে বললে, “দেখ, তোমার কৃষ্ণ রাধার বুকে হাত দেয়নি, আমার রোমিও জুলিয়েটের বুকেও হাত দেয়নি। কিন্তু আমি তোমার বুকে হাত রাখতে পারি।” তুমি কথাটা বলেই আমার বুকে হাত রাখলে। আমি অপ্রস্তুত হয়ে প্রশ্ন করলাম, “এতে কি লাভ?” তুমি উত্তর দিলে, “তুমি কি জানো না, ছেলেদের হৃদয় মেয়েদের হাতের মধ্যেই থাকে!” তোমার কথা শুনে আমি বেদম হেসে উঠে বললাম, “তুমি আমার হৃদয় নিজের হাতে রাখবে বলে যে দিকটা ধরেছো, সেদিকে হৃদয় থাকে না, সেদিকে তো শুধুই গ্যাসের ব্যাথা ওঠে।”

তোমার এই অপ্রত্যাশিত আগমনে আমার মনে হলো, হয়তো এই বৃষ্টির দিনে আমাদের মধ্যে কিছু একটা বিশেষ ঘটে যাবে। তোমার চোখের দৃষ্টিতে ছিল এক অজানা আকর্ষণ, যা আমার হৃদয়ের গভীরে স্পর্শ করলো। আমি বুঝতে পারলাম, তোমার হাতের স্পর্শে আমার হৃদয় নয়, আমার আত্মা কেঁপে উঠেছে। আমরা দুজনেই হাসতে হাসতে কথা বলতে লাগলাম, এবং সেই হাসির মধ্যে দিয়ে আমাদের মধ্যে এক অদৃশ্য বন্ধন তৈরি হলো।

সেই দিনের পর থেকে, আমাদের মধ্যে যে বন্ধন তৈরি হয়েছিল, তা আরও দৃঢ় হয়ে উঠলো। আমরা প্রায়ই একসাথে বৃষ্টির দিনে কলেজের করিডোরে দাঁড়িয়ে থাকতাম, এবং সেই বৃষ্টির ফোঁটা আমাদের হৃদয়ের গভীরে এক অনুভূতির সৃষ্টি করতো। আমাদের প্রেমের গল্প যেন সেই বৃষ্টির মতোই পবিত্র এবং অমলিন হয়ে উঠলো।

 

মূল লেখক : অভিষেক চট্টোপাধ্যায়

পূর্ণ লিখন : তুলিকা দাশগুপ্ত

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © comillardak.com