1. billalhossain@cumillardak.com : দৈনিক কুমিল্লার ডাক : দৈনিক কুমিল্লার ডাক
  2. : admin :
  3. Editor@gmail.com : Comillar Dak : Comillar Dak
  4. Noman@cumillardak.com : Noman :
চৌদ্দগ্রামে মসজিদের টাকা আত্মসাৎ এর অভিযোগে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন - দৈনিক কুমিল্লার ডাক
মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ০২:১৭ পূর্বাহ্ন
Title :
দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের পরবর্তী ৪ মাসে দেবীদ্বারে প্রায় শতাধিক হামলা-মারধরের ঘটনা ঘটেছে ময়নামতি ক্রসিংয়ে ৮ কেজি গাঁজাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক কুমিল্লায় নিহত আবু মিয়ার জন্য এলাকাবাসীর মানববন্ধন : দ্রুত বিচারের দাবি চৌদ্দগ্রামে পূর্ব বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় নারী ও প্রবাসী সহ আহত ৩ “কুমিল্লা নগরীতে চাঁদাবাজির ঘটনায় ক্ষুব্ধ সিটি মেয়র, অভিযুক্ত গ্রেপ্তার” ঘূর্ণিঝড় রিমাল : বঙ্গোপসাগরের তাণ্ডবে বিপদসংকেত জারি দেবীদ্বারে উনঝুটি আদর্শ পাঠাগারের উদ্যোগে মা-বাবার প্রতি দায়িত্ব ও কর্তব্য সম্পর্কে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত “কুমিল্লার ক্রাইম ক্যাপিটল : অপরাধের আড়ালে নগরীর ৬, ১৬ ও ১৭ নং ওয়ার্ড নীরব সাক্ষী” কুমিল্লার তিন ওয়ার্ডে কেন এতো লাশ? কুমিল্লায় ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৫ জন, পলাতক ড্রাইভারকে গ্রেফতার করেছে হাইওয়ে পুলিশ

চৌদ্দগ্রামে মসজিদের টাকা আত্মসাৎ এর অভিযোগে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

মুহা. ফখরুদ্দীন ইমন :
  • Update Time : শুক্রবার, ১২ মে, ২০২৩
  • ৩১৮১ Time View

মসজিদকে হাতিয়ার বানিয়ে রাজনীতি করছে জামায়াত। মসজিদের টাকা আত্মসাৎ ও একই পরিবারের তিন সদস্য মসজিদ কমিটিতে থাকার অভিযোগে বিভিন্ন ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ায় প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ তোলেন ইউসুফ মজুমদার নামে এক আ’লীগ নেতা। তিনি উপজেলার মুন্সীরহাট ইউনিয়ন আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক। ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান নিয়ে জামায়াত-শিবির ‘রাজনীতি’ করছে বলে সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়েছে। উপজেলার মুন্সীরহাট ইউনিয়নের ছোটখিল জামে মসজিদের মুসল্লিরা এই অভিযোগ তুলে মসজিদ নিয়ে মিথ্যা ও বানোয়াট তথ্য সাংবাদিকদের সরবরাহ করে অপপ্রচারের তীব্র নিন্দা জানিয়ে জড়িতদের বিচারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন।

এতে অভিযোগ করা হয়, অন্য কোথাও দাঁড়াতে না পেরে চৌদ্দগ্রামে এখন ‘মসজিদকে হাতিয়ার বানিয়ে’ রাজনীতি করছে জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা। বৃহস্পতিবার (১১ মে) দুপুরে চৌদ্দগ্রাম প্রেসক্লাবে এ উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে মুসল্লিদের পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ছোটখিল জামে মসজিদ পরিচালনা কমিটির সহ-সভাপতি ইউসুফ মজুমদার। এ সময় কমিটির অন্যান্য সদস্য সহ মসজিদের বেশ কয়েকজন মুসল্লি ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

লিখিত বক্তব্যে ইউসুফ মজুমদার বলেন, ‘চৌদ্দগ্রাম উপজেলার ছোটখিল গ্রামে কোনো মসজিদ ছিল না। ২০১২ সালে আমার বাবা ও চাচারা একটি মসজিদ নির্মাণের জন্য ছয় শতক এবং পরবর্তী সময়ে আমি ব্যক্তিগতভাবে আরো দুই শতক মিলিয়ে সর্বমোট আট শতক জায়গা ওয়াকফ করে দেই। মসজিদ নির্মিত হওয়ার পর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হিসেবে আমার বাবা তাজুল ইসলাম মজুমদার দায়িত্ব পালন করে আসছেন। প্রতিষ্ঠাতা হিসেবে এ পদে তিনি আমৃত্যু দায়িত্ব পালন করবেন বলে গ্রামবাসী সিদ্ধান্ত নেয়। আর সেক্রেটারি হিসেবে মুসল্লিদের পক্ষ থেকে সর্বসম্মতিক্রমে যেকোনো একজন দায়িত্ব পালন করবেন। সেই হিসেবে ২০২২ সালে সর্বশেষ গঠনকৃত কমিটির সেক্রেটারির দায়িত্ব পালন করছেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মো. দুলাল হাজারী। অথচ গত মঙ্গলবার (৯ মে) জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা নিরীহ গ্রামবাসীদের ভুল বুঝিয়ে আমাদের মসজিদ নিয়ে অপপ্রচার চালিয়ে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন। তাদের আয়োজিত কথিত সংবাদ সম্মেলনে আমার ভাই মাওলানা মোস্তফা মজুমদারকে সেক্রেটারি বলে অপপ্রচার চালানো হয়। কমিটির সভাপতি আমার বাবা অসুস্থ থাকার কারণে সহ-সভাপতি হিসেবে আমি সেক্রেটারির সঙ্গে সমন্বয় করে মসজিদ পরিচালনা করে আসছি। মসজিদের দায়-দেনা পরিশোধ শেষে কমিটির সহ-সভাপতি মো. ইউসুফ মজুমদার ও সেক্রেটারি দুলাল হাজারির নামে সিটি এজেন্ট ব্যাংক দেড়কোটা শাখায় একটি যৌথ হিসাব খোলা হয়েছে, যার মাধ্যমে মসজিদের হিসাব পরিচালিত হয়ে থাকে। অথচ কথিত সংবাদ সম্মেলনে তারা অপপ্রচার করেছেন, মসজিদের কোনো ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নেই এবং তারা অপপ্রচার চালিয়েছেন যে আমরা মসজিদের টাকা আত্মসাৎ করেছি।

ইউসুফ মজুমদার আরো বলেন, মুসল্লিদের সাথে আলোচনা করে বার্ষিক চাঁদা নির্ধারণ করা হয়। স্বাভাবিকভাবে পরিচালনা কমিটির মেয়াদ দুই থেকে তিন বছর থাকে। সে অনুযায়ী ২০২২ সালের গঠিত কমিটির মেয়াদ শেষ হবে ২০২৪-২০২৫ সালে। গ্রামবাসীর ইবাদত করার জন্য আমরা পারিবারিকভাবে জায়গা ওয়াকফ করে দেওয়া ছাড়াও মসজিদ নির্মাণের জন্য সাবেক রেলমন্ত্রী মো. মুজিবুল হক এমপিসহ বিভিন্ন বিত্তবান ব্যক্তিদের কাছ থেকে দান-অনুদান সংগ্রহ করি। গত মঙ্গলবার যারা কথিত সংবাদ সম্মেলন করেছেন, তাদের ব্যক্তিগত কোনো অনুদান বা তারা কারো কাছ থেকে একটি টাকাও সংগ্রহ করে মসজিদ ফান্ডে দেয়নি।

তিনি আরো বলেন, একজন রাজনৈতিক কর্মী হিসেবে আমার দল বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সরকার গঠন করলে এবং আমার রাজনৈতিক অভিভাবক মুজিবুল হক এমপি নির্বাচিত হওয়ার পর আমি ছোটখিল গ্রামের উন্নয়নে বিভিন্ন দান-অনুদান নিয়ে আসি। আমার এ কর্মকাণ্ড সহ্য করতে না পেরে রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ জামায়াত-শিবির বিভিন্নভাবে ষড়যন্ত্র করছে। সর্বশেষ আর কোনো কিছু না পেয়ে আমাদের মুসলমানদের প্রিয় স্থান মসজিদকে হাতিয়ার বানিয়ে তারা আমার বিরুদ্ধে নতুন করে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে। আমি তাদের এ অপপ্রচারের বিরুদ্ধে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে এদেরকে বয়কট করার জন্য আমার সমাজের লোকজনের প্রতি আহবান জানাই।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © comillardak.com