1. billalhossain@cumillardak.com : দৈনিক কুমিল্লার ডাক : দৈনিক কুমিল্লার ডাক
  2. : admin :
  3. Editor@gmail.com : Comillar Dak : Comillar Dak
  4. Noman@cumillardak.com : Noman :
কুমিল্লার মাদক সম্রাট আক্তার গ্রেফতার হলেও সক্রিয় পরিবারের অন্য সদস্যরা - দৈনিক কুমিল্লার ডাক
বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:৩৮ অপরাহ্ন

কুমিল্লার মাদক সম্রাট আক্তার গ্রেফতার হলেও সক্রিয় পরিবারের অন্য সদস্যরা

নিজস্ব প্রতিবেদক :
  • Update Time : রবিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ৩১৮৬ Time View

কুমিল্লায় একাধিক মামলার আসামী মাদক সম্রাট আক্তার হোসেনকে প্রশাসন গ্রেফতার করলেও বন্ধ হচ্ছে না মাদক ব্যবসা। কুমিল্লার আলোচিত মাদক সম্রাট আক্তার হোসেনের বিরুদ্ধে রয়েছে একাধিক মাদক মামলা। আক্তার হোসেন কারাগারে থাকলেও আক্তারের স্ত্রী হাসিনা বেগম, শালী মাদক সম্রাজী কালি, ছেলে মেহেদী হাসানসহ চিহ্নিত ব্যক্তিদের নিয়ে মাদক পাচারের বিশাল সিন্ডিকেটের মাধ্যমে পাইকারি ও খুচরো বিক্রি করে থাকেন মাদক। অভিযোগ রয়েছে আক্তারের দলে এলাকার কিছু টাউট শ্রেণীর নামধারী নেতা, কথিত সাংবাদিক ও জড়িত। আক্তার হোসেন কোতয়ালি থানার কোটেশ্বর গ্রামের শাহ আলম মিয়ার ছেলে।

বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, কুমিল্লা সদর উপজেলার আমড়াতলি ইউনিয়ন, পাচথুবি ইউনিয়ন, জগন্নাথপুর ইউনিয়নসহ ভারত সীমান্তবর্তী হওয়ায় হটস্পট হিসেবে পরিচিত। এসব স্পট দিয়ে হরহামেশায় কুমিল্লা ছাড়াও ঢাকাসহ বিভিন্ন জেলায় পাচার হচ্ছে ভারতীয় আমদানি নিষিদ্ধ গাঁজা, ফেনসিডিল, মদ, বিয়ার, স্কার্ফ সিরাপ, টাপেন্টাডল ট্যাবলেট জীবননাশক মাদক।
একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র জানায়, আক্তার ও তার দলীয় মাদক পাচারকারী চক্রটি ভারত থেকে মাদক এনে বিভিন্ন স্থানে মজুদ করে এরপর সুবিধা মতো জায়গায় পাচার করে থাকেন। আক্তার ও তার দলীয় মাদক ব্যবসায়ীদের কারনে যুব সমাজ মাদকাসক্ত হচ্ছে প্রতিনিয়ত। মাদকের টাকা জোগাড় করতে মাদকাসক্তরা চুরি, ছিনতাই, ডাকাতি, অপহরণসহ নানাহ অপরাধজনক কর্মকান্ডের সাথে জড়িয়ে পড়ছেন।

নিজেকে পুলিশের সোর্স পরিচয় ও স্থানীয় একটি মহলকে ম্যানেজ করে চলে আক্তারের মাদক ব্যবসা। কেউ প্রতিবাদ করলে ওই গ্যাং বাহিনীর হামলার শিকার হতে হয়। মাদক ব্যবসা করে ভাগ্য খুলে গেছে এ সিন্ডিকেটের। এক সময় শ্রমিকের কাজ করলেও এখন সে লাখপতি। দিন দিন বাড়ছে অর্থ-সম্পদ।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে বসন্তপুর গ্রামের কয়েকজনের সাথে কথা বলে জানা যায়, আক্তার মাদক ব্যবসার সুবিধার্থে শশুর বাড়ি ছাড়াও বিভিন্ন জায়গায় ভাড়া বাসা নিয়ে থাকেন। সূত্র আরও জানান কিছুদিন আগে বিপুল পরিমাণ গাঁজাসহ আক্তারকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এতে এলাকায় কিছুটা স্বস্তিফিরে এলেও থেমে নেই আক্তারের স্ত্রী হাসিনা বেগম, শালি মাদক সম্রাজী কালি, ছেলে মেহেদী হাসান ও তার দলীয় মাদক পাচারকারী চক্রের ব্যবসা।

এদিকে পুলিশ নামে মাত্র মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করলেও রাঘববোয়ালেরা থেকে যাচ্ছে ধরাছোঁয়ার বাহিরে। সচেতন নাগরিকেরা বলেছেন, মাদক মুক্ত সমাজ গড়তে সামাজিক আন্দোলনের বিকল্প নেই। এগিয়ে আসতে হবে জনপ্রতিনিধি ও রাজনৈতিক নেতাদের।

  • এবিষয়ে কুমিল্লা কোতয়ালি মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আহাম্মদ সনজুর মোরশেদ বলেন, পুলিশ সুপার মহোদয়ের নির্দেশে নিয়মিত মাদক বিরোধী অভিযান চলছে। এ অভিযান আরও জোরদার করা হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © comillardak.com