1. billalhossain@cumillardak.com : দৈনিক কুমিল্লার ডাক : দৈনিক কুমিল্লার ডাক
  2. : admin :
  3. Editor@gmail.com : Comillar Dak : Comillar Dak
  4. Noman@cumillardak.com : Noman :
দেবীদ্বারে জসীম চেয়ারম্যানের নীল থাবায় বিলীন হচ্ছে ফসলি জমি, জিম্মি সাধারণ কৃষক - দৈনিক কুমিল্লার ডাক
বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১০:৪৬ অপরাহ্ন

দেবীদ্বারে জসীম চেয়ারম্যানের নীল থাবায় বিলীন হচ্ছে ফসলি জমি, জিম্মি সাধারণ কৃষক

স্টাফ রিপোর্টার:
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২৮ মার্চ, ২০২৪
  • ৩০৫২ Time View

কুমিল্লা জেলার দেবীদ্বার উপজেলার রাজামেহার ইউপি চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন’র নীল থাবায় বিলীন হচ্ছে শতশত একর ফসলি জমি, চলছে ইউনিয়ন জুড়ে অন্তত দশটি অবৈধ ড্রেজার মেশিন।

স্থানীয় সূত্রেঃ জানা যায়, ইউপি চেয়ারম্যান জসিম উদ্দীন ক্ষমতার দাপটে ও নিজস্ব লাঠিয়াল বাহিনীর পেশীশক্তির মাধ্যমে সাধারণ কৃষককে জিম্মি করে, অবৈধ ড্রেজার মেশিন দিয়ে তিন ফসলির কৃষি জমির মাটি কেটে বিভিন্ন সরকারি খাল-বিল, পুকুর-নালা বরাট করছেন প্রতিনিয়ত। অবৈধ ড্রেজার মেশিন দিয়ে কৃষি জমি থেকে মাটি উত্তোলন অবৈধ হলেও নির্ভয়ে বিরতিহীন ভাবে ফসলি জমি বিনাসে চালিয়ে যাচ্ছে তার নীলা কর্মযজ্ঞ।

সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, রাজামেহার পূর্ববন্দ পাশে চলছে নিয়মিত মামলার আসামী ইব্রাহিম পাঠান সফু’র অবৈধ ড্রেজার মেশিন।
রাজামেহার পূর্বপাড়া হলুদিয়ার ফসলী জমির মাটি কাটছে চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন এর ছোট ভাই আক্তারুজ্জামান সরকার ও ড্রেজার হান্নান, চুলাশ বাজারের দক্ষিণ পার্শে উখাড়ী গ্রামে চলে মোঃ ইমরান ও আলী হোসেনের ড্রেজার মেশিন, গাংচর, গোবিন্দপুরে দিনরাত চলছে প্রায় ১০ টি ড্রেজার মেশিন। চুলাশ মৌজার বিএস ১৬৪ দাগের সরকারি সংযোগ খালে ২ টি ড্রেজার দিয়ে ভরাট চলমানের ফলে খালের পানি নিষ্কাশন ব্যাহত হচ্ছে। ফসলি জমি কেটে বিশাল গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এভাবে মাটিকাটা চলতে থাকলে কৃষি জমি চরম ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হবে বলে আশঙ্কা করছে স্থানীয়রা।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন জানান, রাজামেহার এলাকায় জসিম উদ্দিন চেয়ারম্যান প্রায় ৭/৮ টি ড্রেজার মেশিন দিয়ে মাটি উত্তোলন করছেন। প্রভাবশালী চেয়ারম্যান হওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে কেউ কিছু বলে না। প্রশাসনও অবৈধ ড্রেজারের বিরুদ্ধে উল্লেখযোগ্য কোন পদক্ষেপ নিচ্ছে না। মাঝেমধ্যে ইউপি নায়েব গিয়ে খোঁজ খবর নিয়ে চলে আসে অথবা বড়জোর দেবীদ্বার উপজেলা থেকে এসিল্যান্ড এসে এক দুইটা পাইপ ভেঙ্গে লোক দেখানো অভিযান করেন। এদিকে কৃষি জমি ও খাল-বিল ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে এযেন দেখার কেউ নেই। অবৈধ ড্রেজার মেশিন দিয়ে দ্রুত মাটি কাটা বন্ধ না করলে ফসলি জমির উপর অপূরনীয় ক্ষতিকর প্রভাব পড়বে।

এব্যাপরে জসিম উদ্দিন চেয়ারম্যানের সাথে কথা বললে তিনি জানান, আমি মাটি কাটতেছিনা আমার কোন ড্রেজার মেশিন নাই, তবে আমার আপন ছোট ভাই আখতারুজ্জামান ফসলি জমি থেকে ড্রেজার মেশিন দিয়ে মাটি কাটতেছে, সে কিভাবে কাটতেছে এটা আমি জানিনা।
এ ব্যাপারে কথা বলতে উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি রায়হানুল ইসলামের সাথে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করলেও সম্ভব হয়নি।
জেলা প্রশাসক কুমিল্লা’র মুঠোফোনে জানান, ফসলি জমি বিনাস ও অবৈধ ড্রেজার মেশিন দিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের সুনির্দিষ্ট তথ্য পেলে অবশ্যই কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। এক্ষেত্রে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © comillardak.com