1. billalhossain@cumillardak.com : দৈনিক কুমিল্লার ডাক : দৈনিক কুমিল্লার ডাক
  2. : admin :
  3. Editor@gmail.com : Comillar Dak : Comillar Dak
  4. Noman@cumillardak.com : Noman :
দাউদকান্দি উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা সহকারীর বিরুদ্ধে মাঠ কর্মীদের হয়রানির অভিযোগ - দৈনিক কুমিল্লার ডাক
শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০৪:২০ অপরাহ্ন
Title :
তিতাসে জাগ্রত একতা সংঘের সভাপতি শফিকুল ইসলামকে সংবর্ধনা দেবীদ্বারে আগ্নেয়াস্ত্রসহ ডাকাত দলের ১ সদস্য গ্রেফতার চান্দিনায় শ্রমিক অবরোধ : পারিশ্রমিকের দাবিতে মহাসড়ক স্তব্ধ কুমিল্লায় ডিবি পুলিশের অভিযানে ৫২ কেজি গাঁজাসহ দুই মাদক কারবারি গ্রেফতার ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে শ্রমিক আন্দোলনে যানজট চৌদ্দগ্রামে গাঁজা-ইয়াবা উদ্ধার, কথিত সাংবাদিকসহ আটক ১৩ চৌদ্দগ্রামে সড়ক দুর্ঘটনায় কাভার্ডভ্যান চালক নিহত ঈদে পরিবার ছেড়ে রাস্তায় : হাইওয়ে পুলিশের অক্লান্ত সেবায় সুরক্ষিত যাত্রা “কলেজের করিডোরে হৃদয়ের হাসি : বৃষ্টি ও সাহিত্যের মিলন” পুলিশ পরিচয়ে ছিনতাই চক্রের মূল হোতা গ্রেফতার

দাউদকান্দি উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা সহকারীর বিরুদ্ধে মাঠ কর্মীদের হয়রানির অভিযোগ

আনিছুর রহমান খান :
  • Update Time : বুধবার, ২২ নভেম্বর, ২০২৩
  • ৩২১৯ Time View

চাকুরির শুরুর ১২ বছর একই ইষ্টেশনে

কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলা গৌরিপুর পরিবার-পরিকল্পনা অফিসের অফিস সহকারী মাকসুদা আক্তার তুলির বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ এনে ওই অফিসের সকল কর্মচারী বৃন্দ চট্টগ্রাম বিভাগীয় পরিচালক ও কুমিল্লা উপ-পরিচালক বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছেন, ৯ নভেম্বর বৃহস্পতিবার।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, দাউদকান্দি উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা সহকারী মাকসুদা আক্তার (তুলি) গত ১৫/০১/২০১২ইং সালে দাউদকান্দির গৌরীপুর পরিবার পরিকল্পনা অফিসে যোগদান করেন। উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়টি গৌরীপুর ইউনিয়নে অবস্থিত। অভিযুক্ত মাকসুদা আক্তার (তুলির) এলাকা বারপাড়া ইউনিয়নের ইছাপুর গ্রামে। ভৌগলিকভাবে ইছাপুর গ্রামটি উপজেলা কার্যালয়ের নিকটবর্তী হওয়ায় বারপাড়া ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান কেন্দ্রে ইছাপুরে ফ্যামিলি ওয়েল কেয়ার ভিজিটর (পরিবার কল্যান পরিদর্শিকা) হাছিনা আক্তারের নামে, সরকারি বরাদ্দকৃত ভবনটি জোরপূর্বক মাকসুদা আক্তার পরিবার সহ দখল করে রেখেছেন। মাকসুদা আক্তারের বাড়ি ওই গ্রামের ৫০০ গজের মধ্যে হলেও সরকারি ভবনে দখল রেখেছেন।

ইছাপুর কেন্দ্রের পরিবার কল্যান পরিদর্শিকরা সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করছেন কিনা তা তদারকির দায়িত্ব ছিল মেডিকেল অফিসার আফরুজা রোমানা আক্তারের। তিনি তদারকি করতে গিয়ে দেখেন অফিস সহকারী মাকসুদা আক্তার তুলি ভিজিটরের ভবন দখল করে তিনি নিজেই পরিবার নিয়ে ওই ভবনে থাকেন। বাসা দখলের ঘটনায় মেডিকেল অফিসার আফরুজা রোমানা আক্তার কুমিল্লা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার বরাবর লিখিত অভিযোগ প্রদান করেন। কুমিল্লায় লিখিত অভিযোগ প্রদান করায় মেডিকেল অফিসার আফরুজা রোমানা আক্তারকে অফিস সহকারী মাকসুদা আক্তার তুলি গ্যাড়াকলে ফেলে বিভিন্নভাবে হয়রানি করে গৌরীপুর অফিস থেকে ২৬ অক্টোবর ২০২৩ইং তারিখে বদলী হতে বাধ্য করেন।

বাসা দখলের বিষযে বারপাড়া ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান কেন্দ্রের পরিদর্শিকা হাছিনা আক্তার  বলেন, অফিস সহকারী মাকসুদা আক্তার তুলি আমার গ্রামের আত্মীয় হয়। আমার চাকুরির মেয়াদ অল্প কিছুদিন আছে। বেশি কিছু বলে আমি হয়রানির শিকার হতে চাই না।

লিখিত অভিযোগে আরও বলা হয়, মাকসুদা আক্তার মাঠ পর্যায়ে সকল কর্মচারীদের সাথে খারাপ ব্যবহার করে থাকেন, তিনি ষ্টোর কিপারের দায়িত্বে থাকায় মাঠ পর্যায়ের ইষ্টাফদের সাথে সাপ্লাইয়ের ঔষধ নিতে আসলে নানা অযুহাতে বাজে আচরণ ও হয়রানি করেন।

মাঠ পর্যায়ের অফিস স্টাফদের হয়রানির ঘটনায় সাবেক পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম মানিক মাঠ কর্মচারীদের মাসিক সভায় অফিস সহকারী মাকসুদা আক্তার তুলি সকল কর্মচারীবৃন্দদের নিকট ক্ষমা প্রার্থনা করেন। পুনরায় মাকসুদা আক্তার তুলি বর্তমান পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা সাইদুর রহমান মানিকের সময় বিভিন্ন অযুহাতে বাজে আচরণ করছেন। যাহা পৃথক পৃথক কর্মচারীদের গোপনে ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তদন্তে প্রমানিত হবে।

মাঠ পর্যায়ে কর্মরত সকল কর্মীগণ কুমিল্লা জেলার প্রত্যেক অফিস কর্মচারীরা উপজেলায় সবাই সবার স্টক দেখতে পারে। সেখানে কত পরিমান ঔষধ মজুদ আছে, কত পরিমান বিতরণ করা হয়েছে। দাউদকান্দি উপজেলার স্টক বিগত দিনে দেখা গেলেও এখন সেটা অন-লাইনে দেখা যায় না। কারণ মাকসুদা আক্তার তুলি অফিস সহকারী তিনি সেটার পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করে রেখেছেন।

আজ মঙ্গলবার এ ব্যাপারে অভিযুক্ত মাকসুদা আক্তার তুলি  বলেন, আমি মাঠ কর্মীদের হয়রানি করিনি।

সরকারি বাসা তদরকির দায়িত্বে থাকা মেডিকেল অফিসার ডাঃ ইসতিয়াক আহম্মেদ অফিস সহকারী মাকসুদা আক্তার তুলি ভবন দখলের ঘটনায় তিনি বলেন, অল্প কিছুদিন আগে আমি দায়িত্ব নিয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

দাউদকান্দি উপজেলা পরিবার-পরিকল্পনা কর্মকর্তা সাইদুর রহমান মানিক  বলেন, অফিস সহকারী মাকসুদা আক্তার তুলির বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ তদন্ত করে দ্রত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © comillardak.com